ইতিহাস

সিভিল এভিয়েশন স্কুল এন্ড কলেজ ঢাকা মহানগরীর প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পুরাতন বিমান বন্দর, তেজগাঁও ঢাকা – এ অবস্থিত বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ কর্তৃক পরিচালিত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ২২/০৭/১৯৬৩ খ্রীঃ তারিখ হতে স্টাফ ওয়েল ফেয়ার হাই স্কুল নামে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম চলে আসছিল যা বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন অর্থরিটি ২৩/০৭/১৯৯৬ খ্রীঃ তারিখে বিদ্যালয়টির নাম পরিবর্তন করে সিভিল এভিয়েশন উচ্চ বিদ্যালয় নামকরণ করেন। পরবর্তীতে সিভিল এভিয়েশন স্কুল এন্ড কলেজ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। এ প্রতিষ্ঠানটি শিশু শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাথীদেরকে অভিজ্ঞ শিক্ষক, শিক্ষিকা কর্তৃক পাঠদানের মাধ্যমে বিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় উপযোগী করে গড়ে তোলা হয়। বর্তমানে এখানে মানবিক, বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা – এ তিনটি বিভাগে পাঠদান করা হয়। প্রতিষ্ঠানটি ২০১৭ খ্রীঃ থেকে ইংরেজী ভার্সন ও ১৯ জুন ২০১৮ খ্রীঃ তারিখ থেকে একাদশ শ্রেণিতে পাঠদানের অনুমোদন লাভ করে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সময় টুকু ছাড়াও শিক্ষার্থীদের উপর পরিপাশ্বকতার প্রভাব, অভিভাবক এবং শিক্ষক-শিক্ষিকার প্রভাবেই প্রতিটি জীবনকে প্রভাবিত করে। তাই তাদের বেড়ে উঠতে এবং তাদের সুপ্তপ্রতিভার বিকাশ সাধনে অভিভাবক ও শিক্ষক – শিক্ষিকার সম্মিলিত প্রচেষ্টা একান্তভাবে কাম্য। তাদেরকে কর্মমুখী, দায়ীত্বশীল ও স্বাবলম্বী করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষক – শিক্ষিকার ভূমিকার পাশাপাশি আভিভাবকদের ও অনন্য ভুমিকা প্রত্যাশিত।

জীবনে সফলতা অর্জন করতে হলে প্রত্যেক শিক্ষার্থীদের হতে হয় উদ্যমী, পরিশ্রমী, সত্যনিষ্ঠ ও সুশৃঙ্খল। তাই এ বিদ্যালয় পাঠদানের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদেরকে চরিত্র গঠনের উপর ও জোর দেওয়া হয়। এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি নিজ আলোয় উদৃসিত হয়ে এর সকল ছাত্র ছাত্রীদের কেও তাদের জীবনকে আলোকিত করতে বলিষ্ঠ আবদান রাখবে বলে আমরা আশাবাদী।